প`রকীয়া প্রেমিকের সঙ্গে ধরা স্ত্রী, দেশে ফিরে ছেলেকে নিয়ে আত্মঘাতী স্বামী

চট্টগ্রামের সাতকানিয়ায় ছেলেকে বি`ষপান করিয়ে নিজেও বি`ষপানে আত্মহ`ত্যার করেছেন এক বাবা। নি`হতরা হলেন বাবা নুরুল কবির (৩৮) ও ছেলে মো. সানি (৯)। মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) বিকালে সাতকানিয়ার কেঁওচিয়া ইউনিয়নের জনার কেঁওচিয়া এজাহার ডাক্তারের বাড়ির একটি পুকুর পাড় থেকে ছেলের লা`শ ও বাবাকে জীবিত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। পরে হাসপাতালে নেওয়ার পথে বাবা মা`রা যায়। তাদের বাড়ি বান্দরবান পৌরসভার ২নং ওয়ার্ডের বালাঘাটা সিকদার পাড়ায়।

তবে তারা বান্দরবান থেকে সাতকানিয়ায় কেন এসেছে তা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। সাতকানিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আনোয়ার হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।জানা জায়, নি`হত নুরুল কবির প্রবাসে থাকার সুযোগে তার স্ত্রী নাছিমা আক্তার (২৫) বালাঘাটা এলাকার জমির উদ্দিনের (২৭) সঙ্গে প`রকীয়ায় জড়িয়ে পড়েন। এরই মধ্যে গত মাসের শুরুর দিকে নাছিমা আক্তার নিজ বাড়িতে প্রেমিক জমির উদ্দিনসহ এলাকাবাসীর কাছে ধরা পড়েন।

প্রবাসে থাকা নুরুল কবির এমন তথ্য জানতে পেরে দ্রুত দেশে এসে স্ত্রীর কাছে দীর্ঘদিন প্রবাস থেকে পাঠানো অর্থ ও স্বর্ণালংকার ফেরত চাইলে স্বামীর সঙ্গে বি`রোধে জড়িয়ে পড়েন নাছিমা আক্তার। এই বিরোধের সূত্র ধরে নুরুল কবির স্ত্রী নাছিমা আক্তার ও তার প্রেমিক জমির উদ্দিনকে `আ`সামি করে একটি মামলা করেন। সেই থেকেই ছেলে ছানিকে নিয়ে আলাদা থাকেন নুরুল কবির।

গতকাল সোমবার বিকেলে বি`ষপান করা অবস্থায় মৃ`ত্যু যন্ত্রণায় কাতর নুরুল কবির ও তার ছেলে কখন কীভাবে বি`ষপান করে ঘটনাস্থলে এলো এটিই এখন স্থানীয় মানুষের কাছে বড় রহস্যের বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে।সাতকানিয়া থানার ওসি আনোয়ার হোসেন বলেন, ‘নুরুল কবিরের আসল বাড়ি চন্দনাইশ উপজেলার বরমা ইউনিয়নের পশ্চিম বাইনজুড়ি গ্রামে। বসবাস করতেন বান্দরবানের বালাঘাটায়। বেশ কয়েক দিন আগে ফার্নিচারের কাজ করার জন্য দস্তিদার হাটে আসেন। বি`ষ`পান অবস্থায় বাবা-ছেলেকে দেখে লোকজন পু`লিশকে খবর দেয়।

পু`লিশ তাদের সাতকানিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে সেখানকার কর্তব্যরত চিকিৎসক ছেলে ছানিকে মৃত ঘোষণা করেন ও উন্নত চিকিৎসার জন্য নুরুল কবিরকে চমেক হাসপাতালে পাঠায়। সেখানেই তার মৃ`ত্যু হয়। লা`শের ময়নাতদন্ত করা হচ্ছে। তদন্তের পর বি`ষপানে মৃ`ত্যু, নাকি অন্য কিছু এ বিষয়টি জানা যাবে।

সাতকানিয়া সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাকারিয়া রহমান জিকু বলেন, বিষপানে আত্মহত্যা করা নুরুল কবিরের স্ত্রীর অ`নৈতিক স`ম্পর্কের বিষয়টি জানার পর তিনি (নুরুল কবির) স্ত্রী`কে ফেরানোর জন্য অনেক চেষ্টা করেছেন। কিন্তু বার বার ব্যর্থ হওয়ায় শেষে ছেলেকে বি`ষপান করিয়ে নুরুল কবির নিজেও বি`ষপান করেছেন বলে আমরা ধারণা করছি। তবে আরও একাধিক বিষয় সামনে রেখে পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে। তদন্ত শেষে বিস্তারিত জানা যাবে।

Check Also

চাচা-ভাতিজির অনৈতিক সস্পর্ক, অতঃপর

এ ঘটনায় এলাকায় আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়। তদুপরি মেয়ে পক্ষের লোকজন ১লা ডিসেম্বর গত ২৪/১১/২১ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *